Blog

The secret behind Aloe Vera for beauty seekers

Those knowledgeable of skincare ingredients may recognize the thick, green, goopy gel natural skin maverick use in their skin and hair. But Aloe Vera is more than a trend, and here’s why your mom, friends, and even dermatologists stand by this super ingredient in skincare.

What is Aloe Vera?

Aloe Vera is sometimes described as a “wonder plant,” and for good reason. This short-stemmed shrub can and has been used as food, a herbal remedy, and as we know, a key ingredient in skincare and cosmetics.

The earliest record of a human use for Aloe Vera comes from the Ebers Papyrus (an Egyptian medical record) from the 16th century BC, where it was deemed “the plant of immortality.”

Why Use Aloe Vera on your Skin?

Aloe Vera is different because it not only contains all the vitamins and antioxidants your skin needs, but it can also be used as a spot treatment for acne. Usually, spot treatments are known to dry out your skin, but Aloe Vera is actually known for being extremely hydrating and can even be used raw as a moisturizer in the right form.

Other benefits of using Aloe Vera on your skin include anti-aging, boosting cell turnover, and of course, soothing and healing burns or redness. Basically, this stuff is the perfect remedy for all skin concerns.

What is the Best Way to Use Aloe Vera on your Skin?

Although some opt for using aloe gel directly from the plant, we have a few products that make using the magic ingredient on your skin a lot easier and safer. As a makeup remover, it hydrates the skin while removing impurities from your pores.

In fact, using fresh aloe on your face may help clear up acne overall. Acne products made with aloe may be less irritating to the skin than traditional acne treatments, so grab a few hydration products to keep your skin moisturized this summer.

Shop more of our favorite skin care products today on fasttrend.shop

Mid July Beauty tips and hacks

While 4th of July Weekend is just around the corner, here’s a few skincare tips to keep in mind during long hot summer days and nights waiting for fireworks.

Never Skip Removing Your Makeup

The first thing on our patriotic packing list? Makeup remover! Seriously, you’re bound to be rocking a bit of makeup over the weekend, and while you may be tired and ready to hop into bed at the end of the night, you don’t want to skip taking off your makeup!

Remember: Sleeping with makeup on can result in your face makeup mixing with oil and debris on your skin, which can lead to clogged pores and breakouts. So pack a no-rinse makeup remover, like makeup wipes to make cleanup a breeze.

Save Your Face with SPF Products

If you have any type of plan for 4th of July Weekend, chances are you’ll be out in the sun. And chances are even greater that you’ll be rocking some SPF for your body. But remember to also apply some SPF to your face as well. After all, the sun is one of the biggest culprits for early signs of aging. So keep your skin and face protected!

Multitask Products Are Your Friends

You multitask, and so should your products! Keep on hand products that can do double time, like mattifying and hydrating, to minimize your cosmetic bag essentials and touchups if need be.

With the sun beating down on you all day, you’re sure to be feeling the heat. A facial mist is your secret weapon for feeling refreshed throughout the day. Just a quick spritz of the Jurlique Calendula Redness Rescue Calming Mist will be the midday pick-me-up you need.

6 Creative Ways to Use Aztec Clay

Aztec clay, also known as Aztec healing clay, montmorillonite clay or bentonite clay, is made from volcanic ash that has absorbed trace minerals (calcium, magnesium and potassium) and other nutrients from the earth. Many traditional cultures have relied on the clay to detoxify and heal the body for centuries. After all, it’s readily available, effective and doesn’t require complicated processing techniques. For these same reasons, it should come as no surprise the magical mud is steadily gaining favor in the United States.

 

The Aztecs clearly knew a thing or two about harvesting ingredients from the earth. The all-natural clay is not only abundant and affordable, it’s extremely versatile. Bentonite clay can be used internally or externally, from head to toe. Following are six common uses to consider:

1. Oral care

Believe it or not, Aztec clay can be used to make toothpaste. While the idea of cleaning your chompers with ancient mud may not seem appealing (or practical) at first, the detoxifying clay will leave you smiling! And because of its antibacterial properties, Aztec clay can also be mixed with water to form a mouth rinse. An added benefit: Bentonite clay does not contain glycerin, which can prevent teeth from re-mineralizing and cause them to weaken over time

2. Facial mask

Mud masks aren’t a foreign concept. They have been a popular beauty treatment in homes and spas across the country for decades. Purifying Aztec clay holds a prized place in many facial care regimens. Simply mix the detoxifying dirt with equal parts water and/or raw apple cider vinegar and apply it to the face and neck. Let it sit for five to 20 minutes, depending on skin type, and wait for your pores to thank you!

3. Hair mask

Because it’s rich in minerals and nutrients, Aztec clay can be used to cleanse, clarify and nourish all hair types. The versatile Indian clay rids the hair and scalp of dirt and impurities and leaves it soft, shiny and voluminous. Plus, it’s a fraction of the cost of fancy, chemical-laden salon treatments (not to mention, it contains far fewer ingredients)!

4. Skin care

Aztec clay is emollient, which makes it a natural choice for addressing minor skin irritations. Many people use the curative clay (in the form of a compress) for acne, burns, bruises, cuts, scrapes, rashes, skin conditions and even insect bites (take that, pesky mosquitoes!). Plus, it makes a super-soothing foot soak!

5. Dietary supplement

We’ve already mentioned that Aztec clay is chock-full of good-for-you vitamins and minerals. When it’s ingested (mixed with either food or drink), your body absorbs those vital nutrients. Some folks opt to consume bentonite clay powder in place of—or in addition to—other nutritional supplements.

6. Fruit and vegetable wash

A quick rinse under the faucet isn’t always enough to rid your produce of toxins. That’s where Aztec clay comes into play. Unlike the dirt that clings to your fruits and veggies, this dirt can be beneficial to your broccoli and blueberries. First, mix one-part bentonite clay with eight parts water to create a liquid solution. Then add one-quarter cup liquid clay and a quart of water to a non-metallic bowl (metal can counteract the clay’s negative ionic charge, which draws out all the harmful contaminants) and toss in your produce. Let it soak for approximately 10 minutes and rinse as normal.

নখ দেখে স্বাস্থ্য সম্পর্কে আমরা আগে থেকে কিছু বিষয় জেনে নিতে পারি

কথায় বলে, মুখ দেখে যায় চেনা। মুখ দেখেই নাকি একজন মানুষের ব্যক্তিত্ব, হাবভাব, মানসিকতা সম্পর্কে আন্দাজ করা যায়। কে কী ভাবছে, করতে চাইছে, এসবই নাকি মুখে ফুটে ওঠে। তবে জানেন কি, শুধু মুখ নয়, শরীরের নানা অঙ্গ এক একরকমের ইঙ্গিত বহন করে। শরীরে কোথাও কোনও গোলমাল হলে কোনও না কোনও অঙ্গ তার সঙ্কেত আগে থেকে জানিয়ে দেয়। আবার শরীরের কিছু অংশ এমন রয়েছে যা আমাদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে ইঙ্গিতপূর্ণ তথ্য বহন করে। এমনই একটি অংশ হল নখ। এটি সরাসরি আমাদের শরীরের কোনও কাজে না লাগলেও এর নির্দিষ্ট ব্যবহার রয়েছে। এবং এই নখের রঙ দেখে স্বাস্থ্য সম্পর্কে আগাম খবর পাওয়া যায়। নখ দেখে স্বাস্থ্য সম্পর্কে ঠিক কীরকমের খবর আমরা আগে থেকে জেনে নিতে পারি তা জেনে নিন নিচের স্লাইড থেকে।

ভঙ্গুর ও পাতলা নখ

ভঙ্গুর ও পাতলা নখ

খুব সহজেই আপনার নখ ভেঙে যায়? খুব পাতলা আপনার নখ? থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে এই অসুবিধা হতে পারে। চিকিৎসকের কাছে গিয়ে থাইরয়েডের সমস্যা হয়েছে কিনা পরীক্ষা করে নিন।

নখ ফ্যাকাসে ও সাদা দাগ

নখ ফ্যাকাসে ও সাদা দাগ

শরীরে লোহিত রক্ত কণিকার উপস্থিতি কম হলে এমন নখ হয়। আয়রন সমৃদ্ধ খাবার নিজের ডায়েট চার্টে রাখুন। শরীরে লোহিত কণিকার উপস্থিতি কম হলে ডায়বেটিস, পেটের রোগ, থাইরয়েড এমনকী হার্টের সমস্যা হতে পারে।

কালো বা নীলচে নখ

কালো বা নীলচে নখ

কালো বা নীলচে নখ হলে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। শরীরের নানা অঙ্গে অক্সিজেনের অভাব হলে এমন হতে পারে।

নখের মাঝে গর্ত

নখের মাঝে গর্ত

সোরিয়াসিসে আক্রান্ত হলে এমন হয়। বয়স হলে বাত বা থাইরয়েডের সমস্য়ায় আক্রান্ত হতে পারেন আপনি।

নখে লাল ছোপ

নখে লাল ছোপ

এমন হলে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। তাই দেরি না করে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে রাখুন।

নখের মাঝে লাইন

নখের মাঝে সাদা ছোপ

এই লাইনকে বলে ‘বিউ লাইন’। অত্যধিক স্ট্রেসড থাকলে এমন লাইন হতে পারে। এছাড়া কিডনির সমস্যা থাকলেও এই লাইন তৈরি হতে পারে।

নখের মাঝে সাদা ছোপ

নখের মাঝে সাদা ছোপ

হাতের আঙুলে সাদা ছোপ ক্যালশিয়ামের অভাবে হতে পারে। তাই ক্যালশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খেয়ে এই দুর্বলতা দূর করা যেতে পারে।

শরীরে ভালো রাখতে চান? আমন্ড খান দু’বেলা

ডাক্তারের পরামর্শ মেনে খেতে হচ্ছে একগাদা সাপ্লিমেন্ট। কারণ আর কিছুই নয়, শরীর মজবুত করে তুলতে যে যে পদার্থগুলো আপনার প্রয়োজন, তার কোনওটাই আপনার শরীরে নেই। তাই বাইরে থেকে আমদানি করতে হচ্ছে শরীরকে সচল রাখতে। অথচ এমন কিছু খাবার বাজারে সবসময় পাওয়া যায় যারা একাই অনেক কিছুর ঘাটতি মেটাতে পারে অনায়াসে। আমন্ড কিন্তু তেমনই একটা খাবার ফল। স্রেফ আমন্ডের মধ্যে যা যা গুণ আছে, তা একাই আপনার শরীরের পুরোনো উদ্যম ফিরিয়ে আনতে যথেষ্ট।

১। প্রয়োজনীয় মিনেরেলস

১। প্রয়োজনীয় মিনেরেলস

রোজ যেসব আনাজপাতি থেকে শুরু করে আমিষ খাবার খান, তা থেকে শরীরের প্রয়োজনীয় যথেষ্ট পরিমাণ খনিজ পদার্থ পাচ্ছেন তো? আমন্ডে রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম কপারের মত খনিজ পদার্থ, রয়েছে আনস্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিনস-এর মত দরকারি পদার্থগুলিও। অনেক সমীক্ষায় দেখা গেছে আমন্ডে ভিটামিন ই-এর পরিমাণ যথেষ্ট বেশি। বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, যারা নিয়মিত আমন্ড খান তাদের শরীরে ভিটামিন ই-এর অভাবজনিত রোগ দেখাই যায় না।

২। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট

২। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট

আমন্ডে থাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সারাদিন কাজ করার ফলে শরীরে প্রচন্ড স্ট্রেস জমা হয়। এই স্ট্রেসের ফলে কোশের ক্ষতি হতে থাকে। আমন্ডে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের অক্সিডেটিভ স্ট্রেসকে কমাতে সাহায্য করে। মৃত কোশগুলোকে সুস্থ স্বাভাবিক করে তোলে। শুধু মৃতকোশগুলোকে বাঁচিয়ে তুলতেই নয়, ত্বকের বার্ধক্য কমাতেও এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমান উপকারী। আবার প্রদাহজনিত কোনও ব্যথা হলে তা কমাতেও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রয়োজন।

৩। ব্লাড সুগার কমায়

ব্লাড সুগারের রোগীদের চারভাগের একভাগ রোগীদের ক্ষেত্রে দেখা যায় তাদের শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের অভাব। এদিকে ম্যাগনেসিয়াম যে একশোরও বেশি শারীরিক ক্রিয়া চালানোর জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। ৫০ গ্ৰাম আমন্ডে ম্যাগনেশিয়াম থাকে প্রায় দেড়শো গ্ৰামের মত। তাই আমন্ড খেলে শরীরে প্রয়োজনীয় ম্যাগনেসিয়াম-এর মাত্রা বৃদ্ধি পায়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ম্যাগনেসিয়ামের মাত্রা শরীরে ঠিক থাকলে ইনসুলিনের কাজকর্মও স্বাভাবিক হতে থাকে। এই ইনসুলিন হরমোন ঠিকঠাক কাজ করলে রক্তে সুগারের মাত্রাও কিন্তু স্বাভাবিক থাকে।

৪। কোলেস্টেরল কমায়

কোন কোলেস্টেরল আপনার হার্টের জন্য ভালো নয় জানেন কি? কোন কোলেস্টেরল হৃৎপেশির ক্রিয়াকে দুর্বল করে দেয়? ডাক্তারি ভাষায় এর নাম এলডিএল কোলেস্টেরল, সাধারণভাবে যাকে বলা হয়ে থাকে ‘ব্যাড কোলেস্টেরল।’রোজ যেসব ভাজাভুজি বা তেলের রান্না চেটেপুটে খাচ্ছেন তাতে এইধরনের কোলেস্টেরল যথেষ্ট পরিমাণে আপনার শরীরে ঢুকছে। আমন্ড জাতীয় বাদাম এই কোলেস্টেরলকেই ঠেকিয়ে রাখতে সাহায্য করে। মুখের কথা নয়, বিভিন্ন গবেষণায় এটা প্রমাণ হয়ে গেছে। আমন্ড খেলে তাই হার্টের রোগে সহজে কাবু হতে হয় না।

৫। ব্লাড প্রেসার

হাই ব্লাড প্রেসারের জন্য সহজেই মাথা গরম হয়ে যায়। অফিস থেকে বাড়ি সব জায়গায় অশান্তি হচ্ছে আপনার গরম স্বভাবের কারণে। ব্যাপারটা আপনার মনেও কম খোঁচা দিচ্ছে না। রোজ নিয়ম করে আমন্ড খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রয়েছে। ব্লাড প্রেসারের প্রধান কারণ হল শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের অভাব। আর আমন্ড হল ম্যাগনেসিয়ামের সম্ভার। ফলে নিয়মিত আমন্ড খেলেই কিন্তু এই ম্যাগনেসিয়ামের অভাব মেটানো সম্ভব। হাই ব্লাড প্রেশারে হার্ট অ্যাটাক, কিডনির সমস্যার মত দুর্ঘটনাও কিন্তু ঘটতে পারে। তাই অবশ্যই প্রেশার নিয়ন্ত্রণে রাখা দরকার।

৬। ওজন ঠিক রাখে

প্রোটিন আর ফাইবার জাতীয় খাবার খেলে আপনার পেট ভরা থাকে অনেকক্ষণ। আমন্ডে এই দুটোই রয়েছে যথেষ্ট পরিমাণে। তাই নিয়মিত আমন্ড খেলে বেশ কয়েক ঘণ্টা শরীরের প্রয়োজন পড়বে না অন্য কোনও খাবারের। তাই খিদেয় যখন পেট গুড়গুড় করছে, আমন্ড খেতে পারেন নিশ্চিন্তে। আকারে ছোট্ট দেখতে হলেও আপনার খিদে মেটাবে তৎক্ষণাৎ

৭ টি সকালের অভ্যাস যা আপনার ত্বককে করে তুলবে মনোরম!

প্রত্যেক মানুষের চাওয়াই হয় সুন্দর ও সাবলীল ত্বক। তবে ব্যস্ততার কারণে হয়ে উঠে না তার সঠিক পরিচর্যা। প্রাত্যহিক দিনের শুরুতে সামান্য কিছু পরিচর্যায় যদি আপনার ত্বক হয়ে উঠে স্বাস্থ্যকর ও মসৃণ, তাহলে আর দেরি কেন? আসুন জেনে নিই ৭ টি সকালের অভ্যাস যা আপনার ত্বককে করে তুলবে মনোরম।

১. ভালো ফেশওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন: ঘুম থেকে উঠার পর শুরুতেই মুখ পরিষ্কার করে নিন ভালো করে। ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ফেশওয়াশ ব্যবহার করুন। সকালে শুরুতেই মুখ পরিষ্কার করে নিলে এটি আপনার সারা রাতে চেহারায় জমে থাকা তৈলাক্তভাব দূর করবে। একটি পরিষ্কার মুখ নিয়ে আপনার দিন শুরু করুন।

২. পরিবেশ দূষণ থেকে ত্বককে বাঁচান: প্রতিদিন বাড়ির বাইরে গেলেই আমাদের মুখোমুখি হতে হয় নানারকম ধূলাবালির। আর তা থেকে বাঁচতে হলে বেঁছে নিতে হবে ভিটামিন সি এবং ফ্লোরেটিন, ফেরুলিক এসিড সমৃদ্ধ স্কিনকেয়ার ক্রিম। যা আপনার ত্বককে বাহ্যিক ধূলাবালি থেকে বাঁচাতে সহায়তা করবে।

৩. সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে ভুলবেন না: ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রে এই জিনিস ভুললে একদম চলবে না। প্রতিদিন বের হবার আগে কিছু সময় নিয়ে হলেও সানস্ক্রিন ক্রিম ত্বকে ব্যবহার করুন। ত্বকে ভারী মেকাপ নিন কিংবা খুব সামান্য! ত্বকের যত্নের জন্য, রোদ থেকে বাঁচাতে হলে সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করা আপনার জন্য অত্যাবশ্যক।

৪. মুখের সাথে ঘাঁড়, গলা এবং হাতের যত্ন নেয়ার ব্যাপারেও খেয়াল রাখতে হবে: রৌদ্রের প্রকটে শুধু যে মুখমন্ডল ক্ষতি হয় তা নয় বরং তা আপনার ঘাঁড়, গলা ও হাতসহ অন্যান্য বাহ্যিক ত্বকেরও ক্ষতি করে থাকে। তাই বাসা থেকে বের হবার পূর্বে শরীরের এই বাহ্যিক অংশগুলোতেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে ভুলবেন না। শরীরের এই অঙ্গপ্রত্যঙ্গগুলো ত্বকের আগেই লাবণ্য হারিয়ে ফেলে আর তাই এসবের যত্ন নেয়াও জরুরি।

৫. পিম্পলে আঙ্গুল দিয়ে চাপা বন্ধ করুন: ঘুম থেকে উঠেই আয়নায় নিজের চেহারা দেখতে যেয়ে নজরে এলো পিম্পল। কী করবেন? হাত দিয়ে চাপ দিবেন? অবশ্যই না। মন থেকে সবার আগে এমন ভাবনা তুলে ফেলুন। পিম্পলে আঙ্গুল ছোঁয়ানোরই কোনো দরকার নেই। স্যালিসাইলিক এসিড সমৃদ্ধ পণ্য ত্বকে ব্যবহার করুন যা আপনার ত্বককে করবে পিম্পলমুক্ত। এছাড়া ভালো কনসিলার ব্যবহার করে আপনি চাইলে আপনার ত্বক থেকে সমসাময়িকের জন্য পিম্পল ঢেকে দিতে পারেন।

৬. সকালের নাস্তায় সতেজ ফল ও সবজি রাখুন: সকালেই নাস্তায় সবুজ শাকসবজি রাখুন। পাশাপাশি সতেজ ফলও রাখুন। ফলের জুস এক্ষেত্রে আপনার জন্য উপকারী। তাছাড়া ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খান নিয়মিত। যা আপনার ত্বকের ফ্যাকাশে ভাব দূর করে, ত্বককে করবে টানটান ও মসৃণ।

৭. নিয়মিত পানি পান করুন: যখন আপনি তৃষ্ণার্ত থাকবেন তা প্রভাব ফেলবে আপনার ত্বকেও। ত্বকের কোমলতা ত্বককে রাখে সুস্থ এবং এ জন্য সবচেয়ে কার্যকরী হলো পানি। নিয়মিত পানি পানে ত্বকের শুকনোভাব দূর করে ত্বককে করে তুলে কোমল ও পিম্পলমুক্ত। সকালের কফি পানের পূর্বে এক গ্লাস পানি খেয়ে নিন। দুপুরের খাবারে আগে অন্তত ৭- ৮ গ্লাস পানি পান করুন।

বর্ষায় চুলের যত্নে কিছু টিপস!

বর্ষায় চুলের যত্ন নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন অনেকে। এটা খুবই স্বাভাবিক। কারণ, এ সময় বাতাসে আর্দ্রতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চুলের দরকার হয় বাড়তি যত্ন। তবে উদ্বেগের কিছু নেই। আপনি হাতের কাছে থাকা উপাদান দিয়েই চুলের যত্ন নিতে পারবেন। দেখে নিন কয়েকটি উপায়-

মধু-পানি: গোসলের সময় এক মগ পানিতে মিশিয়ে নিন আধ কাপের চেয়ে একটু বেশি পরিমাণ মধু। শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহারের পরিবর্তে এই মিশ্রণ ঢেলে দিন চুলে। আঙুল চালিয়ে হালকা ম্যাসাজ করুন। পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন চুল।

মধু-দই: দুই চামচ টক দই ও তিন চামচ মধু মিশিয়ে একটা হেয়ার প্যাক বানিয়ে নিন। গোসলের আগে এই মিশ্রণ মেখে নিন চুলে। তারপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

ডিম-মধু: এই সময় চুলে খুব জট পড়ে। রুক্ষ চুলের সমস্যায় যারা ভুগেন, তাদের জন্য এই প্যাক খুব কার্যকর। দুটো ডিম ভেঙে তাতে তিন চামচ মধু যোগ করে ফেটিয়ে নিন। এই প্যাকটিও গোসলের আগে চুলে লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন খুব ভালো করে। শ্যাম্পুর পর ক্ষারবিহীন বা খুব অল্প ক্ষারযুক্ত কোনও কন্ডিশনার দিয়ে ধুয়ে ফেলুন চুল।